বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন

উখিয়ায় নিদানিয়ার আলমগীরের উপর সন্ত্রাসী হামলা ও নগদ টাকা লুট

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১
  • ১০ বার পড়া হয়েছে

উখিয়া উপজেলার জালিয়া পালং ইউনিয়নের নিদানিয়ায় মো. আলমগীর নামে এক সুপারী ব্যবসায়ীর উপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এসময় সন্ত্রাসীরা ওই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে নগদ ১ লক্ষ ৮ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। গত ১১ জুন বিকাল ৫টায় এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সুপারী ব্যবসায়ী মো. আলমগীরসহ তার পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল নুরুল আমিন প্রকাশ নুরুল্লাহ, মো. রফিক, সালাহ উদ্দিন, আনোয়ার ইসলাম প্রকাশ চোরা বাবুল, কায়সার ও গিয়াস উদ্দিন গংয়ের সাথে।

বিভিন্ন সময় তাঁরা মো. আলমগীরকে হামলা, অপহরণ, খুনসহ নানা হুমকী ধমকী দিয়ে আসছে। যার ধারাবাহিকতায় গত ১১ জুন ব্যবসায়ীক কাজে ইনানী যাওয়ার পথে জালিয়া পালং মধ্যম নিদানিয়া দুইমোয়া এলাকায় পৌছলে মো. আলমগীরের উপর অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও ভূমিদস্যু নুরুল আমিন প্রকাশ নুরুল্লাহ, মো. রফিক, সালাহ উদ্দিন, আনোয়ার ইসলাম প্রকাশ বাবুল, কায়সার, গিয়াস উদ্দিনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৩/৪ জন সন্ত্রাসী। এসময় সন্ত্রাসীরা মো. আলমগীরকে লোহার রড, দা, লাঠিসহ ধারালো অস্ত্র নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম করে।

এসময় তার পকেটে গচ্ছিত থাকা ব্যবসার ১ লক্ষ ৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় সন্ত্রাসীরা। হামলার একপর্যায়ে ব্যবসায়ী মো. আলমগীরের আর্তচিৎকার করতে থাকলে সন্তাসীরা তাকে টেনে হিচড়ে সিএনজিতে তুলে অপহরণের চেষ্টা চালায়। এসময় ব্যবসায়ী মো. আলমগীরকে মৃত ভেবে রাস্তায় ফেলে সন্ত্রাসীরা সটকে পড়ে।

পরে খবর পেয়ে মো. আলমগীরকে পরিবারের সদস্যরা মূমুর্ষূ অবস্থায় উদ্ধার করে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রামে রেফার করেন। বর্তমানে তিনি মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ব্যবসায়ী মো. আলমগীরের পরিবার।

স্থানীয়রা জানান, নুরুল আমিন প্রকাশ নুরুল্লাহ, মো. রফিক, সালাহ উদ্দিন, আনোয়ার ইসলাম প্রকাশ বাবুল, কায়সার, গিয়াস উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে নানা অপকর্ম করে আসছে। জমি দখল, হামলা, অপহরণ, ডাকাতি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড তাদের নিত্যদিনের কাজ। তাদের অপকর্মে কেউ বাধা দিলে শিকার হতে হয় মামলা-হামলার। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। চিহ্নিত এই সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102