রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২৯ অপরাহ্ন

ওয়াসিমের ক্যাডারদের অন্তঃকোন্দলে খুন হয়েছেন জয়নাল

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে শনিবার, ৮ মে, ২০২১
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

পেকুয়ার মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের বিতর্কিত চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিমের নিজস্ব ক্যাডার বাহিনীর অন্তঃকোন্দলে খুন হয়েছে সাবেক যুবদল নেতা জয়নাল আবেদিন। শুক্রবার (৭ মে) বিকেলে পেকুয়া উপজেলা সদরের জেলা পরিষদ ডাকবাংলো হলরুমে আয়োজিত সভায় এ কথা বলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা। মগনামা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও ওয়াসিমের ঘনিষ্ঠ সহচর জয়নাল আবেদিনকে হত্যা মামলায় স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের ফাঁসানোর অভিযোগ সরেজমিনে তদন্ত করতে এসে এ সভা আয়োজন করা হয়।

সভায় বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান বলেন, যুবদল নেতা জয়নালকে হত্যা করেছে আবু ছৈয়দ নামের এক সন্ত্রাসী। সেও ওয়াসিমের ক্যাডার ছিলো। সম্প্রতি তাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হলে আবু ছৈয়দ নিজের সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলে।

এদিকে ওয়াসিম, জয়নাল ও আলী আকবরসহ ওয়াসিম বাহিনীর অপর সন্ত্রাসীরা তাদের পরাস্ত করবার চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এর জের ধরে জয়নালকে হত্যা করা হয়েছে। আলী আকবরকেও হত্যা চেষ্টা চালানো হয়েছে। কিন্তু দীর্ঘ মেয়াদের সুফল পেতে এ হত্যাকাণ্ডকে পুঁজি করে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের দমন করছে চেয়ারম্যান ওয়াসিম। এতে সে কিছুটা সফলও বটে। বর্তমানে মগনামা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী শূন্য। কিন্তু ওয়াসিমের এ মনোবাসনা আমরা কোনভাবে পূর্ণ হতে দেব না। বিষয়টি আমরা ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মহোদয়কে জানিয়েছি।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, নিজেদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হত্যা করা হয় যুবদল নেতা জয়নালকে। এই হত্যা মামলায় উদ্দেশ্যমূলকভাবে নিরহ ব্যক্তি, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের আসামী করা হয়েছে। অবিলম্বে এই হত্যাকান্ডে নিরহ কোন ব্যক্তি ও দলীয় নেতাকর্মীদের হয়রানী না করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি আহবান জানাচ্ছি। পাশাপাশি তদন্ত সাপেক্ষে এই জঘন্য হত্যাকান্ডের সাথে যারা জড?িত রয়েছে তাদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দাবি করেন নেতৃবৃন্দ।

উক্ত সভায় মগনামা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ও অঙ্গ সংগঠনের নির্যাতিত নেতাকর্মীদের পরিবারের সদস্যরা, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল করিম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য গিয়াস উদ্দিন, উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, রাজাখালী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম চৌধুরী বাবুল, পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি জিয়াবুল হক জিকু, আওয়ামীলীগ নেতা নাছির উদ্দিন, রাশেদুল কবির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102