সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:৪৮ অপরাহ্ন

কক্সবাজার শহরে দোকান মালিক কর্তৃক ভাড়াটিয়াকে পেটানোর অভিযোগ

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১
  • ২৭ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজার শহরের বিমানবন্দর সড়কের সৈকত উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে দোকান ভাড়াটিয়াকে মারধর করে মালামাল ছিনিয়ে নিয়েছে দোকান মালিক রমিজ আহমদের পুত্র মিছবাহ (২২) এমন অভিযোগ উঠেছে। প্রকাশ, এসময় মালিকের ছেলে মিছবাহ ব্যাপক ভাংচুর ও দোকানের মালামাল তছনছ করে ভাড়াটিয়ার ভাই মো: দিদারুল আলমকে কিল-ঘুষি লাথি মেরে আহত করে।পরে পাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে নেয়।

অভিযোগে জানা যায়, গত ৮ জুন সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ভাড়াটিয়া আবদুর রহিমের ছোট ভাই মো: দিদারুল আলম দোকানে বেচাকেনা করছিল। এসময় হঠাৎ মালিকের ছেলে মিছবাহ দোকানে প্রবেশ করে মালামাল ছিনিয়ে নিলে এর কারণ জানলে চাইলে তাকে তাৎক্ষনিক মারধর শুরু করে এবং দোকান থেকে বের হওয়ার জন্য হুমকি দেয়। পরে লোকজন এসে দিদারকে উদ্ধার করলে ভাড়াটিয়া আবদুর রহিম তার ভাইকে মারার কারণ জানতে চাইলে তাকে মারার হুমকি দেয় মালিকসহ তার ছেলে।

পাশ্ববর্তী লোকজন জানিয়েছে প্রায় সময় দোকান মালিক ভাড়াটিয়ার রহিমের উপর চড়াও হয় এবং কারণে অকারণে দোকান থেকে মালামাল নিয়ে যায়। এসবের কোনে হিসাব নেই।

ভাড়াটিয়া আবদুর রহিম বলেন, প্রায় সময় মালিক পক্ষ তার সাথে খারাপ আচরণ ও অন্যায়ভাবে মালামাল নিয়ে যায়। এসবের প্রতিবাদ করলে তাদের উপর হামলা চালায় দোকান মালিক রমিজ আহমদ ও তার পুত্র মিছবাহ।এরপর আমি ব্যবসার খাতিরে এসব অন্যায় অত্যাচার সহ্য করে আসছি। মাসে মাসে ভাড়া পরিশোধ করলেও কোনো রশিদ বা লিখিত কোনো ডকুমেন্ট দেয় না মালিক রমিজ।

এখন চক্তির শেষের দিকে এসে দোকান মালিক প্রতিনিয়ত আমাদের সাথে খারাপ আচরণ ও মারধর করে আসছে। আমি দোকান মালিক রমিজ আহমদের অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে নিস্তার পেতে ইতিমধ্যে সদর থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছি। এব্যাপারে আমি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনার পাশাপাশি অত্যাচারি রমিজ আহমদসহ তার সন্তানের শাস্তি দাবি করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102