বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

গ্রামীণের চিংড়িঘের সন্ত্রাসীদের দখলে

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে শুক্রবার, ৯ জুলাই, ২০২১
  • ১৯ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ৩০০ একরের একটি চিংড়িঘের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী দখল করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অর্থনীতিবিদ, গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ মৎস্য ও পশু ফাউন্ডেশন এই ঘেরের মালিক। বাংলাদেশে সর্বপ্রথম ‘আধা নিবিড় (সেমি ইনটেনসিভ)’ পদ্ধতিতে চিংড়ি চাষ শুরু হয়েছিল এই ঘেরে।

গ্রামীণ চিংড়িঘেরের কর্মচারীরা জানান, গত সোমবার রাতে প্রায় অর্ধশত সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রামীণ ব্যাংকের ৩০০ একরের ওই চিংড়িঘের ঘেরাও করে ফেলে। এ সময় সন্ত্রাসীরা মুহুর্মুহু ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে। এরপর সন্ত্রাসীরা ঘেরের ১৫ জন কর্মচারীকে হাত-পা বেঁধে মারধর করে তাড়িয়ে দিয়ে ঘেরটি দখল করে নেয়।

ঘেরের ব্যবস্থাপক উৎপল কান্তি এ ব্যাপারে মঙ্গলবার রাতে চকরিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ (এজাহার) দিয়েছেন। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত সোমবার রাতে ঘেরে হানা দিয়ে দুর্বৃত্তরা অন্তত সাত লাখ টাকার চিংড়ি ও অন্যান্য মালামাল লুট করে। প্রতিদিন ঘের থেকে এক লাখ থেকে দেড় লাখ টাকার চিংড়ি ও অন্যান্য মালামাল লুট করা হচ্ছে।

চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ জুবায়ের সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ তিনি পেয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

জানা গেছে, কক্সবাজারের চকরিয়া সুন্দরবনখ্যাত রামপুর মৌজার চিংড়ি জোনে এটি গ্রামীণ ব্যাংকের ঘের হিসেবে পরিচিত। অত্যাধুনিক চিংড়ি চাষের এটিই একমাত্র সরকার থেকে ইজারা নেওয়া কোনো বড় চিংড়ি প্রকল্প। চকরিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী জানান, চকরিয়ায় বিভিন্ন চিংড়ি ঘেরে প্রায়ই জবরদখল ও মাছ চুরির ঘটনা ঘটে। তবে রামপুর মৎস্য বিভাগের ইজারা দেওয়া এত বড় ঘের এই প্রথমবারের মতো জবরদখলের ঘটনা ঘটল। মৎস্য অধিদপ্তরের কক্সবাজার আঞ্চলিক মৎস্য কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘রামপুর মৌজার সাত হাজার একর চিংড়ি জমির মধ্যে গ্রামীণ মৎস্য ফাউন্ডেশনকে ৩০০ একর ইজারা দেওয়া হয়েছিল। ২০১৪ সালে ১৫ বছরের ইজারার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। ইজারার মেয়াদ বৃদ্ধির বিষয় নিয়ে বর্তমানে গ্রামীণের সঙ্গে মৎস্য বিভাগের মামলা বিচারাধীন। ঘেরের দখল ঠিকই রয়েছে গ্রামীণ কর্তৃপক্ষের। অন্য কেউ জবরদখল করার খবর আমাদের জানা নেই।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102