বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

চকরিয়ায় জেলেদের মাঝে চাল বিতরণে অনিয়ম

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে বৃহস্পতিবার, ৩ জুন, ২০২১
  • ৪৩ বার পড়া হয়েছে

চকরিয়ায় জেলেদের মাঝে চাল বিতরণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে প্রতিবাদ করায় নিপু দাশ (২২) নামে এক ছেলেকে পিটিয়ে জখম করেছে পৌরসভার এক কর্মচারী। ১ জুন মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে চকরিয়া পৌরসভা কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহত নিপু দাশকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। নিপু দাশ পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড তরছঘাট জলদাশপাড়ার নৈইদার চাঁদের ছেলে।

জানা গেছে, মাছ ধরা বন্ধের সময় জেলেদের সহায়তা হিসেবে প্রথম দফায় প্রতি পরিবারকে ৫৬ কেজি চাল দিচ্ছেন সরকার।

মঙ্গলবার সকালে চাল নিতে পৌরসভা কার্যালয়ে হাজির হয় পৌরএলাকার জেলেরা।

পৌরসভার কর্মচারী মাহবুব আলম প্রত্যেক জেলেকে ৫৬ কেজির পরিবর্তে ৪০ কেজি চাল প্রদান করায় প্রতিবাদ করেন নিপু দাশ। এসময় মাহবুব আলম বিদ্যুতের তার দিয়ে নিপু দাশকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন।

বাংলাদেশ ক্ষুদ্র মৎস্যজীবি জেলে সমিতি কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি আশরাফ আলী বলেন, সরকারীভাবে ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ সময়ে প্রথম দফায় জেলেদের সহয়তা হিসেবে ৫৬ কেজি চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্ত পৌরসভার কর্মচারী ৪০ কেজি করে প্রদান করায় প্রতিবাদ করেন নিপু দাশ। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে মারধর করে ওই কর্মচারী। আমি প্রশাসনের কাছে এর বিচার দাবী করছি।

এদিকে অনিয়মের প্রতিবাদ করায় জেলে সম্প্রদায়ের নেতা কৃষ্ণ দাশকে পৌর প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাসুদ মোর্শেদ হুমকি দিচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সারাদেশে গত ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত ৬৫ দিন মাছ ধরা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই সময়ে জেলেদের সহায়তা হিসেবে দুই দফায় ৮৬ কেজি করে চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রথম দফায় ৫৬ কেজি ও দ্বিতীয় দফায় ৩০ কেজি চাল প্রদান করা হবে।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বলেন, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102