বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন

নিষেধাজ্ঞার আগেই জেলেদের খাদ্য সহায়তার দাবি

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ১৭ মে, ২০২১
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে

পরিবারের সঙ্গে ঈদ কাটিয়ে সাগরে মাছ শিকারে নেমেছেন কক্সবাজার উপকূলের জেলেরা। তবে ছোট ট্রলারগুলো মাছ শিকারে গেলেও বড় ট্রলারগুলো সাগরে যায়নি। জেলেরা বলছেন, আবার ২০ মে থেকে সাগরে ৬৫ দিন মাছ শিকার বন্ধ, তাই বড় ট্রলারগুলো উপকূলেই নোঙর করা রয়েছে। এদিকে নিষেধাজ্ঞার আগে জেলেদের সরকারি খাদ্য সহায়তার আওতায় আনার দাবি ফিশিং বোট মালিক সমিতির।

কক্সবাজারের বাঁকখালী নদীর উপকূলবর্তী মোহনা। নোঙর করা আছে শত শত মাছ ধরার ট্রলার। পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করে অনেক জেলে ফিরছেন ট্রলারে। ছোট ট্রলারের অনেক জেলে মাছ শিকারে রওনা হচ্ছেন সাগরে। তবে জেলেরা বলছেন, নিষেধাজ্ঞার আগে শেষবারের মতো সাগরে মাছ শিকারে যাচ্ছেন তারা।

আগামী ২০ মে থেকে সাগরে ৬৫ দিন মাছ শিকার বন্ধ। তাই বড় ট্রলারের জেলেরা ট্রলার থেকে নামিয়ে ফেলছেন জালসহ নানা সামগ্রী। আবার অনেক জেলে করছেন জাল মেরামতের কাজ।

এদিকে সাগরে নিষেধাজ্ঞার আগেই জেলেদের সরকারি খাদ্য সহায়তার আওতায় আনার দাবি জানান ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ কাইয়ুম ।

মৎস্য কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জেলার ৬৩ হাজার ১৯৩ জন জেলের জন্য প্রায় ৩ হাজার ৫৩৯ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ হয়েছে। যা ৮টি উপজেলায় প্রদান করেছে জেলা প্রশাসন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102