বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০১:৫১ অপরাহ্ন

প্রয়াত সাংবাদিক বকশীর স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ টাকা দিল ‘সেভ এ মাদার, সেভ এ লাইফ’

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৬ বার পড়া হয়েছে

প্রয়াত সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বকশীর স্ত্রীর লুৎফা বকশীর চিকিৎসার জন্য সংগ্রহ করা ১০ লাখ টাকা কক্সবাজার প্রেসক্লাব কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেছে কক্সবাজার বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুলের বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মানবিক প্লাটফর্ম ‘সেভ এ মাদার, সেভ এ লাইফ’।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এই অর্থ কক্সবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মুজিবুল ইসলামের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এই অর্থ প্রয়াত নজরুল ইসলাম বকশীর পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ভারতের চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালে বর্তমানে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন লুৎফা বকশী। তিনি পূর্ব থেকে ক্যান্সার আক্রান্ত ছিলেন। সেখানে মায়ের সাথে অবস্থান করছে বকশীর দুই সন্তানও। এর আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৮ এপ্রিল মারা যান বকশী।

উদ্ভুত পরিস্থিতিতে অসহায় পরিবারটির পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগ নেয় কক্সবাজার বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুলের বর্তমান ও প্রাক্তন ১৪ জন শিক্ষার্থী। পরিবারটিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে খোলা হয় অনলাইন প্লাটফর্ম (গ্রুপ) ‘সেভ এ মাদার, সেভ এ লাইফ।

প্রেসক্লাব কর্তৃপক্ষের কাছে টাকা হস্তান্তরকালে কক্সবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি আবু তাহের বলেন, আপনারা যে উদ্যোগটা নিলেন তা মানবিক দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। আজ যে অর্থ সহায়তা আপনারা দিচ্ছেন এতে পরিবারের সাহস বাড়বে। তারা সাহস পাবে এই ভেবে যে, আমরা একা নই, আমাদের সাথে শুভাকাঙ্খিরা আছে, আমাদের সহকর্মীরা আছে। মানুষ যে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে যায় সেই সাহসটুকু একটা বিপর্যস্ত পরিবারের জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি ‘

তিনি বলেন, আপনারা আজকে ১০ লাখ টাকা দিচ্ছেন। আমরাও ইতোপূর্বে ৭০ হাজার টাকা দিয়ে শুরু করেছিলাম। পরে মেয়র মুজিবুর রহমান দিয়েছেন এক লাখ টাকা। আরও বিভিন্ন জনের কাছ থেকে আমরা অর্থ সংগ্রহ করেছি। এ পর্যন্ত প্রায় ১০ লাখ টাকা সংগৃহিত হয়েছে। আমি কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করি, আমাদের বন্ধু মারা গেছেন, তার সহধর্মীনি যেন সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসতে পারেন। তার সন্তানেরা যেন আবার এসে আমাদের পাশে দাঁড়ায়।

কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল ইসলাম বলেন, এটি অনেক বড় মানবিক উদ্যোগ। এ উদ্যোগ আমাদের সন্তান বয়সী ছেলেরা নিয়েছে। এ উদ্যোগের অংশীদার হয়ে বিশাল একটা তহবিল বৃদ্ধির ব্যাপারে ভূমিকা রেখেছেন আমাদের বন্ধু, একজন মানবিক যোদ্ধা শহীদ উল্লাহ শহীদ। তিনি প্রায় সময়ই এ ধরনের উদ্যোগ নেন।

তিনি আরও বলেন, বকশী ভাইয়ের স্ত্রী, আমাদের বোন লুৎফা ওখানে চিকিৎসাধীন আছেন। আল্লাহর কাছে দোয়া করবো, ওনি যাতে দ্রুত সুস্থতা লাভ করেন। তাঁর সন্তানরা এখনও ছোট। তার সন্তানদের ভবিষ্যতটাও আমাদের দেখতে হবে। যেভাবে সবাই মিলে উদ্যোগটা নিয়েছি, তাঁর পরিবারের প্রতি যে অনুভূতি, আবেগ আমরা রেখেছি, সেটা ভবিষ্যতেও আমরা রাখতে পারবো। আগামীতেও যেকোন মানবিক উদ্যোগে আমরা একসাথে কাজ করবো।

তিনি বলেন, একজন গাড়ি বিক্রি করে আমাদের তহবিলে অর্থ দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। ওই গাড়িটি এখনও বিক্রি করা যায়নি। বিক্রি করা গেলে সেই অর্থও পরিবারটিকে দেওয়া হবে। যারা এই মানবিক উদ্যোগে এগিয়ে এসেছে তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

তিনি জানান, এই প্লাটফর্মে সংগৃহিত আরও ৬০ হাজার টাকা বিয়ামের ৬ কর্মচারীকে দেওয়া হবে যারা গত ৬ মাস বেতন পায়নি।

প্রেসক্লাব কর্তৃপক্ষের কাছে টাকা হস্তান্তরকালে উপস্থিত ছিলেন ‘সেভ এ মাদার, সেভ এ লাইফ ‘ এর সংগঠক ইরফানুল হক, আরিফুর রহমান জাওয়াদ, মাহবুবুর রহমান সাকিব, এসআরজে রাফি, আশফিক রহমান ও তকি আরিফ প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102