রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

বিশ্বে আক্রান্ত ১৫ কোটি ছাড়াল।

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে শনিবার, ১ মে, ২০২১
  • ১০ বার পড়া হয়েছে

ভারত ও ব্রাজিলে মর্মান্তিক বিপর্যয়ের মধ্যে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ কোটি ছাড়িয়ে গেল, যার শেষ এক কোটি রোগী শনাক্ত হয়েছে মাত্র ১২ দিনে। এইতো গত ২৭ জানুয়ারি বিশ্বে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১০ কোটির মাইলফলকে পৌঁছায়। কিন্তু ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে অতি দ্রুত। মাত্র চার মাসের মধ্যে নতুন রোগী বেড়েছে ৫০ শতাংশ।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের হালনাগাদ তথ্যে দেখা গেছে, শুক্রবার বিশ্বজুড়ে ১৫ কোটির নতুন খারাপ উচ্চতায় পৌঁছে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা। এ সময়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩১ লাখ ৬৭ হাজার। সুস্থতার সংখ্যাও অবশ্য বাড়ছে, মোট সুস্থ হয়েছেন ৮ কোটি ৭৬ লাখ জন।

আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকালে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ কোটি ছাড়ায়। এর আগে ১৮ এপ্রিল বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ছাড়ায়। ২৩ এপ্রিল আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছিল সাড়ে ১৪ কোটি।

ফ্রেব্রæয়ারির মাঝামাঝি সময়ের পর থেকে বিশ্বজুড়ে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণের বেশি বেড়েছে। এতে আক্রান্তের মোট সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। অক্টোবর থেকে জানুয়ারি পর্যন্ত দ্বিতীয় ঢেউয়ের শুরুর দিকে বিশ্বে আগের ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল সাড়ে তিন লাখ, তা এখন ৮ লাখ ২১ হাজারে পৌঁছেছে। এ সময়ে সংক্রমণের পাশাপাশি দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তথ্য অনুযায়ী, আগের ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৪ হাজার ৮৭৬ জন। গত একদিনে সবচেয়ে বেশি মারা গেছেন ভারতে ৩ হাজার ৪৯৮ জন।

শুক্রবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্তও হয়েছে ভারতে ৩ লাখ ৮৬ হাজার। এরপর গত একদিনে ব্রাজিলে ৭৯ হাজার ৭২৬ জন এবং যুক্তরাষ্ট্রে ৫৩ হাজার ৮৭৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। গত একদিনে সবচেয়ে কম একজন আক্রান্ত হয়েছেন সামোয়া নামের দেশটিতে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইভ আপডেট অনুযায়ী, সর্বমোট আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার পর্যন্ত ৩ কোটি ২২ লাখ সংক্রমিত হয়েছে। এ সময়ে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৭৫ হাজার ১৯৭ জনের। সর্বশেষ কয়েক দিনে চরম দুর্দশার মধ্যে পড়া ভারত আক্রান্তের দিক দিয়ে দ্বিতীয় এবং মৃত্যুতে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে।দেশটিতে এক কোটি ৮৭ লাখের মধ্যে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ লাখ ১৬ হাজার ৪৪৭ জন। সংক্রমণে তৃতীয় কিন্তু মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৪৫ লাখ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ১ হাজার ১৮৬ জনের।

মৃত্যুর দিক থেকে তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকা মেক্সিকোতে সংক্রমণের সংখ্যা কম। মোট মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৮ হাজার ৩৩০ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা ২৩ লাখ ৪০ হাজার। ফ্রান্সের অবস্থান আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে মোট ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার।তবে মৃত্যুর দিক থেকে তালিকায় নিচের দিকে ৮ নম্বরে, মোট মারা গেছেন ১ লাখ ৪ হাজার ৩৮৫ জন। আক্রান্তের দিক থেকে পাঁচ নম্বরে থাকা তুরস্কে সংক্রমিত হন মোট ৪৭ লাখ ৮৮ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ৩৯ হাজার ৭৩৭ জনের।

সংক্রমণেরর তালিকায় এর পরে রয়েছে রাশিয়া ৪৭ লাখ ৫০ হাজার (মৃত্যু ১ লাখ ৮ হাজার ২৯০), যুক্তরাজ্য ৪৪ লাখ ২৯ হাজার (মৃত্যু ১ লাখ ২৭ হাজার ৫৯), ইতালি ৪০ লাখ ৯ হাজার (মৃত্যু ১ লাখ ২০ হাজার ৫৪৪)। আক্রান্তের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। সবচেয়ে কম আক্রান্ত ১ জন মাইক্রোনেশিয়ায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102