বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:১৪ পূর্বাহ্ন

শহর পুলিশ ফাঁড়ির অভিযানে উদ্ধারকৃত কারসহ ২৪০ লিটার মদ কার?

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ৭ জুন, ২০২১
  • ৩৬ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির অভিযানে ২৪০ লিটার দেশীয় তৈরি চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়েছে। ৫ জুন সকাল ৭ টার সময় কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির একটি চৌকস দল শহরের রুমালিয়ারছড়ার পিটি স্কুলের সামনে চেকপোস্ট ডিউটি করাকালীন একটি সাদা রংয়ের প্রাইভেট কার সিগনাল দিলে সিগনাল অমান্য করে প্রাইভেট কারটি পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে তা ধাওয়া করে তারাবনিয়ারছড়া কলেজ গেইট রোড এর সামনে প্রাইভেট কার রেখে গাড়ির চালক পালিয়ে যায়। এ সময় প্রাইভেটকার তল্লাশি করে ১২ টি বস্তায় ২০ লিটার করে সর্বমোট ২৪০ লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়। অভাযোগ উঠেছে এসব শহরের ঘোনারপাড়ার কবরস্থান রোডের দিল মোহাম্মদের পুত্র রবিউল হাসান রবির বলে ।

দীর্ঘদিন যাবত সে রামুর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদক বিশেষ করে চোলাই মদ এনে ঘোনারপাড়ায় বিক্রি করে আসছে বলে দাবী স্থানীয়দের। গত মাসে রামুর মিঠাছড়িতে মদভর্তি সিএনজি পুলিশ ধাওয়া করে পরে সেখানকার একজন জনপ্রতিনিধির ভাই উক্ত মদসহ সিএনজি আটক করে।

জনপ্রতিনিধির ভাইকে ২০ হাজার টাকা দিয়ে মদসহ সিএনজিটি ছাড়িয়ে নেয় উক্ত রবিউল। শহর পুলিশ ফাঁড়ীর আটককৃত উক্ত ২০ লিটার মদও রবিউলের বলে জানা গেছে। পুলিশ গাড়ির মালিককে আটক করলে বিস্তারিত জানতে পারবে বলে জানান ঘোনারপাড়ার কয়েকজন বাসিন্দা। পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে বেশ কয়েক বছর রবিউল মাদক ব্যবসা করে আসছে।

এদিকে আটক মাদক বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানান কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির আইসি ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
themesba-lates1749691102